জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে দৈনিক উপচার পত্রিকার মিলন মেলা। আইসিটি নিউজ

জাতীয় রাজনীতি

আইসিটি নিউজ: নাটোর থেকে ফিরে এসে মোঃ মনিরুল ইসলাম নাচোল-চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর প্রতিনিধিঃ ‘মহা মিলনের লগ্নে শেকড়ের সন্ধানে’ এই প্রতিপাদ্যে রাজশাহী থেকে প্রকাশিত দৈনিক উপচার পত্রিকার বার্ষিক মিলন মেলা ২০২০ জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল রবিবার ১৫মার্চ দিনব্যাপী নাটোর লালপুর গ্রীনভ্যালি পার্কে এ মিলন মেলা অনুষ্ঠিত হয়। পত্রিকার রাজশাহীসহ বিভিন্ন জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে কর্মরত সাংবাদিকদের পরিবারের সকল সদস্যদের অংশ গ্রহণে মিলন মেলার আয়োজন করা হয়। এ’ছাড়াও মিলন মেলায় অংশ গ্রহণ করেন পত্রিকার শুভাকাংখিরা। মিলন মেলার ১ম পর্বে ছিলো বিভিন্ন জেলা/উপজেলা ভিত্তিক সাংবাদিক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে পরিচয় পর্ব। অতিথিদের পরিচয় পর্ব। বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে খেলাধুলা, ভোজন, ও সর্বশেষে খেলাধুলা ও লটারির টিকিটের পুরস্কার বিতরনী ।

দৈনিক উপচার পত্রিকার সহ-সম্পাদক মো: নুরে ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে গণধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক ইয়াকুব শিকদার, দৈনিক উপচার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ফারুক আহম্মেদ চৌধুরী,পত্রিকার সহ-নির্বাহী সম্পাদক মো: মাসুদ রানা,মফস্বল সম্পাদক সারোয়ার সবুজ,মান্দা প্রতিনিধি মাহাবুবুর জামান সেতু,নাচোল প্রতিনিধি আব্দুর রহমান মানিক বক্তব্য রাখেন। এ ছাড়াও বিভিন্এজলা/উপজেলা থেকে আসা পত্রিকার প্রতিনিধিরা মিলন মেলায় পত্রিকাকে আরো এক ধাপ এগিয়ে নেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যাক্ত করেন। দৈনিক উপচার পত্রিকাকে উত্তরাঞ্চলের মানুষের প্রধান মূখপাত্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে সাংবাদিকরা জোরালো ভুমিকা রাখারও অঙ্গিকার ব্যক্ত করেন।

এ সময় গণধ্বনি প্রতিদিন পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক ইয়াকুব শিকদার বলেন, ‘বাংলাদেশে এতো জাতীয় দৈনিকের ভীড়ের মাঝেও স্থানীয় পত্রিকাগুলো টিকে আছে পাঠকের আশা ও চাহিদা অনুযায়ী সংবাদ পরিবেশনের মাধ্যমে। সংবাদপত্রের সংবাদের একটি লাইনের জন্য সাংবাদিকদের এখান থেকে সেখান ছুটা-ছুটি করতে হয়। সর্বশেষে একটি লাইনের পিছনে তাদের অনেক ব্যয় করতে হয় অথচ স্থানীয় সংবাদপত্রগুলো জনগনের সেবা দেওয়ার স্বার্থে নাম মাত্র মূল্যে তাদের কপি বিক্রি করে।’

দৈনিক উপচার পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক ফারুক আহম্মেদ চৌধুরী বলেন ‘আমরা হয়তো জনবল বা সীমাবদ্ধতার কারণে অনেক কাজ করতে পারি না। তাই আমাদের বিষয়ে সমালোচনা থাকতে পারে। তাই সংবাদপত্রগুলোকে বলবো অব্যশই আমাদের সমালোচনা করবেন তবে সেটা জনগণের স্বার্থে। যাতে আমরা সর্বদা সজাগ থেকে জনগণের সেবা করতে পারি।

এ সময় দৈনিক উপচার পত্রিকার সহ-সম্পাদক নুরে ইসলাম মিলন বলেন, ‘সংবাদপত্র হচ্ছে জনগণের চোখ ও কান। চারপাশে যে ঘটনা ঘটে জনগণ তা সংবাদপত্রের মাধ্যমে দেখে ও শোনে। একজন সাংবাদিকের ব্যক্তিগত নৈতিকতা ও নিজস্ব চালচলন আদর্শবান হওয়া, মাঠ পর্যায়ের সাংবাদিকদের শিক্ষাগত যোগ্যতা যাচাই ছাড়া কাউকে নিয়োগ না দেওয়া, স্থানীয় সাংবাদিকদের মধ্যে ব্যক্তিগত বিভেদ পরিহার করে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার মানসিকতা তৈরি করা, একজন অন্যজন সম্পর্কে মিথ্যাচার বা কুৎসা রটানো থেকে বিরত থাকা, মানুষের কাছে আদর্শের দৃষ্টান্ত হতে পারে এ রকম ভূমিকায় নিজেদের জানান দেয়া, মানুষ সাংবাদিকদের ভয়ে সম্মান না করে আন্তরিকতা থেকে যেনো সম্মান জানায় সে দিকে খেয়াল রাখা উচিত। একজন সাংবাদিকের অযাচিত লিখনীতে যেন সম্মানিত কোন ব্যক্তির সম্মানহানি না হয় এদিকে খেয়াল রেখে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

এসময় অন্যন্ন্যদের মধ্যে দৈনিক উপচার পত্রিকার সহ-ব্যবস্থাপক এহেসান হাবীব,নিজস্ব প্রতিনিধি মামুনুর রশিদ,বাবু,নিজস্ব প্রতিনিধি আলেক জেন্ডার,নিজস্ব প্রতিনিধি রাবউল ইসলাম, ফটো সাংবাদিক এ কে এম ফায়সাল আহমেদ টকি,ফটো সাংবাদিক আলামিন হোসেন,ফটো সাংবাদিক আশিক ইকবাল অন্তর,ফটো সাংবাদিক হযরত আলী,তানোর প্রতিনিধি সোহানুল হক পারভেজ, মোহনপুর প্রতিনিধি মোজাহার সিলাম,গোদাগাড়ী প্রতিনিধি সাইফুর রহমান,চারঘাট প্রতিনিধি আসাদুল হক মিলন,বাঘা প্রতিনিধি রবিউল ইসলাম,ভোলাহাট প্রতিনিধি মো: মনিরুল ইসলাম মনির,নাচোল প্রতিনিধি আব্দুর রহমান মানিক, পৌর প্রতিনিধি মোঃ মনিরুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি আপেল মাহামুদ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি আরিফ,বানেশ্বন প্রতিনিধি শফিকুল, সাদকিুল ইসলাম,শরিফুল ইসলামসহ প্রায় দুইশত সাংবাদিক ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষে সকলকে শুভেচ্ছা জানিয়ে দৈনিক উপচার পত্রিকার বার্ষিক মিলন মেলা ২০২০ এর সমাপনি ঘোষনা করেন পত্রিকার সহ-নির্বাহী সম্পাদক মাসুদ রানা।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *