ফুলবাড়ীতে শামসুল হক সরকার স্মৃতি টুর্ণামেন্টের ফাইনাল অনুষ্ঠিত। আইসিটিনিউজ বিডি২৪

খেলাধুলা

আইসিটিনিউজ বিডি২৪: এজি লাভলু, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে গতকাল ২৫ জানুয়ারি শনিবার রাত সাড়ে ৭ টায় মরহুম শামসুল হক সরকার স্মুতি হাডুডু, ভলিবল ও ব্যাডমিন্টন টুর্ণামেন্ট ২০২০ এর ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাছারী মাঠে পক্ষকাল ব্যাপী রাত্রিকালীন এ টুর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়। শামসুল হক সরকার ছিলেন ফুলবাড়ী সদর ইউনিয়নের তিনবারের সাবেক চেয়ারম্যান ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন তিনি ছিলেন তৎকালীন ফুলবাড়ী থানা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক। ফুলবাড়ীকে মুক্তাঞ্চল রাখার পেছনে তার অসামান্য অবদান ছিল।

টুর্ণামেন্টের ফাইনালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ জাফর আলী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি চাষী এম এ করিম, জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আলহাজ্ব রুহুল আমিন দুলাল, নাগেশ্বরী উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামান, ডিএসবি’র ওসি খন্দকার ফুয়াদ রুহানী, ফুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায়, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শেখ বাবুল, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ওবাইদুর রহমান, জেলা পরিষদ সদস্য লাভলী বেগম ও কাজী নাজমুল হুদা লাল প্রমূখ।

টুর্ণামেন্টের সফল আয়োজন সম্পর্কে প্রধান পৃষ্ঠপোষক মরহুম শামসুল হক সরকারের বড় ছেলে ফুলবাড়ী উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম রব্বানী সরকার বলেন, আমার বাবা ছিলেন একজন ক্রীড়ামোদী মানুষ। বিশেষ করে হাডুডু খেলার প্রতি তার ছিল প্রবল টান। তিনি ছিলেন মুজিবের সৈনিক। তাই মুজিব বর্ষের প্রাক্কালে তার স্মরণে জনপ্রিয় এ খেলার আয়োজন। এর সফল সমাপ্তিতে তিনি সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। ফাইনাল খেলা দেখতে বিকেলের মধ্যে কাছারী মাঠ হাজার হাজার দর্শকে পরিপূর্ণ হয়ে যায়। তাদের আগ্রহের কেন্দ্র বিন্দু ছিল যশোর ও নীলফামারী থেকে আসা হাডুডু খেলোয়াড়দের ক্রীড়াশৈলী দেখা। সেই সাথে ছিল বগুড়া, কুড়িগ্রাম ও নাগেশ্বরী থেকে আসা ভলিবল ও ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়দের খেলা।

ফাইনালে হাডুডু খেলায় পানিমাছকুটি দল দাসিয়ারছড়া দলকে, ভলিবল খেলায় নাগেশ্বরী দল বড়ভিটা গেটের বাজার শান্ত ক্লাবকে এবং ব্যাডমিন্টন খেলায় কুড়িগ্রাম দল শাহবাজার স্বতন্ত্র ক্লাব দলকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়।

ফাইনাল খেলার আগে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

 

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *