আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি সোমবার ও মঙ্গলবার শেরপুরের মাছের মেলা। আইসিটিনিউজ বিডি২৪

জাতীয়

আইসিটিনিউজ বিডি২৪ঃ শেখ সাহেদ মিয়াঃ মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ

মৌলভীবাজার শেরপুরে  মাছের মেলা আগামী ১৩ ও ১৪ জানুয়ারি অনুষ্টিত হবে।
 প্রায় ২০০ বছরের আগে থেকে চলে আসা ঐতিহ্যবাহী এ মাছের মেলা শেষ হবে আগামী মঙ্গলবার ভোরে।
ঐতিহ্যবাহী মাছের মেলায়  মাছ কিনতে মৌলভীবাজার, সিলেট, হবিগঞ্জ, সুনামগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থান থেকে আসবেন পাইকারী  ব্যবসায়ীরা।
একেকটি আড়তে মাছের বাক্স-পেটরা খোলা হয়, আর দরদাম হাঁকা নিয়ে শুরু হয় হইচই। এদিকে প্রতিবছরের ন্যায় এবারও মেলার আয়োজকদের দাবি শেরপুরের মাছের মেলার জন্য স্থায়ীভাবে স্থান নির্ধারণ করা হয়।
 ‘মাছের মেলা এ অঞ্চলের একটি ঐতিহ্যবাহী মেলা। সিলেটের মধ্যে মৌলভীবাজার, সুনামগঞ্জ ও হবিগঞ্জের বিভিন্ন হাওর-নদীর মাছ ছাড়াও খুলনা, সাতক্ষীরা, যশোর, রাজশাহী, ময়মনসিংহসহ বিভিন্ন স্থানের মাছ আসে। এক রাতে এখানে দেড় থেকে দুই কোটি টাকার মাছ বিক্রি হয়।’
অত্র এলাকার বিভিন্ন মানুষের দাবী দীর্ঘদিন থেকে কুশিয়ারা নদীর তীর ঘেঁষে চলা এ মেলার স্থানটি ভূমিহীনদের বন্দোবস্ত দেয়ায় মেলা পরিচালনায় ব্যাঘাত ঘটছে। ঐতিহ্যবাহী এই মাছের মেলা টিকিয়ে রাখার জন্য স্থায়ী ভাবে স্থান নির্ধারণের জন্য তারা জেলা প্রশাদনের নিকট জোর দাবি জানান।
 হাওর ও নদীতে স্বাভাবিক ভাবে বেড়ে উঠা মাছ ও দেশীয় প্রজাতির টাটকামাছ পাওয়ায় মেলায় মাছ ক্রয় করতে আসেন অনেকেই।মেলায় পছন্দের মাছ বিপুল পরিমান পাওয়া গেলেও দাম অনেকটা বেশী হয়।
এছাড়াও যদিও এই মাছের মেলা নামে পরিচিত হলেও মাছ মেলায় রয়েছে ফার্নিচার, গৃহস্থালী সামগ্রী, খেলনা সামগ্রীসহ গ্রামীণ ঐতিহ্যের দোকান। মেলাটি এখন সার্বজনীন উৎসবে রূপ নিয়েছে। মূল মেলার আগে ও পরে সময় বাড়িয়ে এটিকে তিন দিনের আয়োজনে রূপ দেওয়া হয়েছে,কিন্ত এখন আর তিনদিন হয় না,দুদিনেই মেলা শেষ হয়ে যায়।
 ‘শেরপুরের মেলায় এবার জুয়া ও অশ্লীলনৃত্য বন্ধ রয়েছে। গতবছরও জুয়া ও যাত্রার কার্যক্রম বন্ধ ছিল। মেলায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হবে বলে জানা যায়।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *