মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে ৪১ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত। আইসিটিনিউজ বিডি২৪

রাজনীতি

আইসিটিনিউজ বিডি২৪: শেখ সাহেদ মিয়াঃ 

১৯৭৯ সালের ১ জানুয়ারি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল প্রতিষ্ঠা করেন বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান। ছাত্রদলের প্রধান শ্লোগান হচ্ছে-শিক্ষা, ঐক্য, প্রগতি।
১ জানুয়ারি ছাত্রদলের ৪১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ছিল।
 তবে বরাবরের মতো এবার ৩১ ডিসেম্বর রাত ১২টা ১মিনিটে কেক কাটার কর্মসূচি ছিল না।
আশির দশকে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর ছাত্র সংসদে ছাত্রদলের উল্লেখযোগ্য অবস্থান ছিল। এর পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রামেও সামনের সারিতে দেখা গেছে এই সংগঠনটিকে। গত এক দশক ধরে ক্ষমতার বাইরে রয়েছে বিএনপি।
 নতুন বছরে নতুন উদ্যোমে গনতন্ত্র পূর্নরুদ্ধার ও দেশনেত্রী বেগম  খালেদা  জিয়ার মুক্তির আন্দোলন সংগ্রামে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে  চান মৌলভীবাজার জেলা  ছাত্রদল নেতারা।
তারই ধারাবাহিকতায় ৫ ই জানুয়ারি রবিবার  বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল মৌলভীবাজার জেলা শাখা কর্তৃক র‍্যালী ও সমাবেশের আয়োজন করা হয়।
মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রুবেল মিয়ার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আকিদুর রহমান সোহান এর সঞ্চালনায় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ সভাপতি ও সাবেক মেয়র ফয়জুল করীম ময়ূন, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ভিপি মিজানুর রহমান মিজান।
এ সময় ,উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির সহ সভাপতি আব্দুল মুকিত,মোয়াজ্জেম হোসেন মাতুক,যুগ্ন সম্পাদক হেলু মিয়া,সাংগঠনিক সম্পাদক বকশি মিছবাহুর রহমান,সহ সাধারণ সম্পাদক মুহিতুর রহমান হেলাল,দপ্তর সম্পাদক ফখরুল ইসলাম, ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক গাজী মারুফ, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি স্বাগত কিশোর দাস চৌধুরী,সাধারণ সম্পাদক জি এম মোক্তাদির রাজু, জেলা বিএনপির ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সারোয়ার মজুমদার ইমন,সাবেক ছাত্রনেতা এ এম নিশাত, আফিয়ান আহমেদ শিপু,কৃষক দলের যুগ্ন আহবায়ক মোনাহিম কবীর।
জেলা ছাত্রদল এর যুগ্ন সম্পাদক শাহ আলম,
জেলা ছাত্রদল নেতা রিপন মিয়া,ইসহাক আহমদ রাহিন, সোহাগ মিয়া, মোজাম্মেল হোসেন সাজু, মামুন পারভেজ,জামাদুর রহমান পাপন,রুমেল আহমেদ, সুমন আহমদ, আবিদ আহমেদ, শহীদ আহমদ, ইলিয়াস কবীর শাহীন,জসিম আহমেদ কামরুল ইসলাম, জনি আহমেদ, হেলাল আহমেদ, জায়েদ আহমদ, তমাল হাজারী, জুয়েল শেখ, সেজিম আহমেদ, তাজুদ আহমেদ, সাহেদ আহমেদ, শুভ আহমেদ, সৈকত হোসেন, আলামিন হোসেন প্রমুখ।

Sharing is caring!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *